বিতর্কিত প্রশ্ন- ভাষার ভিত্তিতে গঠিত ভারতের প্রথম রাজ্য কোনটি?

সাধারণ জ্ঞানের বিতর্কিত প্রশ্ন

প্রশ্ন-৩: ভাষার ভিত্তিতে গঠিত ভারতের প্রথম রাজ্য কোনটি?
ক) পশ্চিমবঙ্গ 
খ) ওড়িশা 
গ) অন্ধ্রপ্রদেশ 
ঘ) তামিলনাড়ু 
  উত্তর- যারা চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা সঙ্গে সঙ্গে বলবেন গ)অন্ধ্র প্রদেশ। বর্তমান ইতিহাস এবং রাষ্ট্রবিজ্ঞান পাঠ্যসূচিতেও বিষয়টি উল্লেখিত আছে। উত্তরটি ভুল নয়। স্বাধীন ভারতে ভাষার ভিত্তিতে রাজ্য পুনর্গঠনের দাবি জোরালো হলে ১৯৫৩ সালে তদানীন্তন মাদ্রাজ রাজ্যের উত্তর অংশের তেলুগু-ভাষী জেলাগুলিকে নিয়ে অন্ধ্র রাজ্যের প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। ১৯৫৬ সালে এই অন্ধ্র রাজ্যের সঙ্গে তেলুগু-ভাষী আরো কিছু অঞ্চল যোগ করে অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্য গঠিত হয়। বস্তুতপক্ষে, ১৯৫৬ সালের রাজ্য পুনর্গঠন আইন অনুসারে গঠিত প্রথম রাজ্য অন্ধ্র প্রদেশ।
  এবার আসি বিতর্কের প্রসঙ্গে। আমরা জানলাম যে ভাষার ভিত্তিতে গঠিত প্রথম রাজ্য অন্ধ্র প্রদেশ কিন্তু সেটা স্বাধীনতার পরবর্তীকালে। ভারত স্বাধীন হবার আগেই কিন্তু ভাষার ভিত্তিতে একটি রাজ্য পুনর্গঠন হয়েছিল। রাজ্যটি হল উড়িষ্যা যার বর্তমান নাম ওড়িশা। উনিশ শতকের শেষ দিকেই ওড়িয়া ভাষাভাষী মানুষজন স্বতন্ত্র রাজ্যের দাবি জানাতে শুরু করেছিল। তারা তদানীন্তন “বিহার ও উড়িষ্যা প্রদেশ” বিভাজিত করে শুধুমাত্র ওড়িয়া-ভাষী অঞ্চলগুলি নিয়ে উড়িষ্যা প্রদেশ গঠনের দাবি করে। পরবর্তীকালে, ওড়িয়া জাতীয়তাবাদের পুরোধা মধুসূদন দাসের নেতৃত্বে এই দাবি আরো জোরালো হয় এবং ১৯৩৬ সালে ওড়িশা প্রদেশের জন্ম হয়। এই উড়িষ্যাই ছিল পরাধীন ভারতে ভাষার ভিত্তিতে গঠিত প্রথম রাজ্য। 

   সুতরাং যদি প্রশ্নপত্রে উল্লেখ করা থাকে “পরাধীন ভারতে” ভাষার ভিত্তিতে প্রথম রাজ্য কোনটি? উত্তর হবে উড়িষ্যা বা ওড়িশা। যদি বলে দেয় “স্বাধীনতার পরে”, উত্তর হবে অন্ধ্র প্রদেশ। কিন্তু যদি কিছুই উল্লেখ করা না থাকে? যে প্রশ্ন দিয়ে আমাদের আলোচনা শুরু করেছিলাম, অর্থাৎ ভাষার ভিত্তিতে গঠিত ভারতের প্রথম রাজ্য কোনটি?- এই প্রশ্নটি যদি পরীক্ষায় আসে তাহলে উত্তরটা ‘উড়িষ্যা’ বা ‘ওড়িশা’ হওয়া উচিত। অনেকেই তর্কের খাতিরে বলবেন অন্ধ্র প্রদেশ হওয়া উচিত কারন ভারতে বলতে স্বাধীন ভারতকেই বোঝাচ্ছে। তখন কেউ কেউ বলবেন, পরাধীন ভারতের ঘটনা হলেও ওড়িশা তো ভারতেরই অংশ রয়ে গেছে, তাই উত্তর ওড়িশা হবে। এভাবে সহজ একটা প্রশ্ন তর্কে বহুদূর চলে যাবে। যাইহোক, চাকরির পরীক্ষার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে প্রশ্নপত্রে কোনোরকম অস্বচ্ছতা না থাকাটাই বাঞ্ছনীয়।
পোস্ট সিরিজ: চাকরির পরীক্ষায় বিতর্কিত জিকে।
নবীনতর পূর্বতন